করোনা ভাইরাসের’ উৎস ইউহানের জৈব রাসায়নিক মারণাস্ত্র তৈরির কারখানা বায়ো-সেফটি লেভেল ৪ ল্যাবোরেটরি।

0
98

আনন্দ মুখোপাধ্যায় :: নিউজ ২০ টোয়েন্টি :: ৩রা এপ্রিল :: নয়াদিল্লি :: চীনে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে চারশোরও বেশি লোকের মৃত্যুর পর কেন্দ্র সরকার সে দেশে ইস্যু করা সমস্ত ভারতীয় ভিসা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই নজিরবিহীন পদক্ষেপের অর্থ হল, কোনো চীনা নাগরিক বা চীনের বাসিন্দা অন্য কোনো দেশের নাগরিকের আগে থেকে ভারতীয় ভিসা থাকলেও তারা এখন সে দেশে ঢুকতে পারবেন না।বেইজিংয়ে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস মঙ্গলবার সকালে একটি টুইট করে জানিয়েছে, ‘আমরা এটা স্পষ্ট করে দিতে চাই যে আগে থেকে জারি করা ভিসা আর বৈধ বলে গণ্য হবে না’। যারা ভারতে যেতে চান তাদের বেইজিংয়ের ভারতীয় দূতাবাস অথবা সাংহাই ও গুয়াংঝুতে অবস্থিত ভারতীয় কনস্যুলেটে নতুন করে আবেদন করতেও বলা হয়েছে। এমনকী, যে সব চীনা নাগরিক ১৫ জানুয়ারির পর ভারতে ঢুকেছেন, তাদেরকেও ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি হটলাইন নম্বরে জরুরি ভিত্তিতে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। তবে তাদের বিষয় কী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে তা জানানো হয়নি।

কিন্তু কিভাবে উৎপত্তি হলো এই মরণ ভাইরাসের ?

চিন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস ক্রমেই মহামারীর আকার নিচ্ছে। লাফিয়ে বাড়ছে মৃত ও আক্রান্তের সংখ‌্যা। আক্রান্ত হতে বাদ নেই ইউরোপ, আমেরিকাও। বিমানযাত্রীদের মাধ‌্যমে ছড়াচ্ছে ভাইরাস। আতঙ্ক ছড়িয়েছে সুদূর অস্ট্রেলিয়া থেকে দক্ষিণ আফ্রিকাতেও। এই ঘটনায় রেসিডেন্ট ইভিল সিনেমার ভয়ানক প্রতিফলনই দেখতে পাচ্ছেন অনেকে। কারণ, দুটি দাবি ঘিরে চাঞ্চল‌্য ছড়িয়েছে দুনিয়া জুড়ে। প্রথমটি হল ইজরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ সন্দেহ করেছে, রহস্যময় ‘নোভেল করোনা ভাইরাসের’ চাষ করেছে চিনের গোপন সামরিক গবেষণাগার। দ্বিতীয় দাবি, মার্কিন পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্ট এই দাবিকেই সমর্থন করেছে।ইজরায়েলের জীবাণু অস্ত্রের বিশেষজ্ঞরাও বলেছেন, এই ভাইরাসের জন্মদাতা ইউহানের জৈব রাসায়নিক মারণাস্ত্র তৈরির কারখানা বায়ো-সেফটি লেভেল ৪ ল্যাবোরেটরি। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে, অসাবধানতাবশত এই গবেষণাগার থেকেই ছড়িয়েছে ভাইরাসের সংক্রমণ। আসলে জৈব রাসায়নিক অস্ত্রের উপর গবেষণা করতে গিয়েই দুর্ঘটনা ঘটিয়েছেন চিনের বিজ্ঞানীরা।

ইজরায়েলের সেনা গোয়েন্দাদের উদ্ধৃত করে সে দেশের দুটি ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, সেনাবাহিনীর ব‌্যাপক আধুনিকীকরণ, ছাঁটাই প্রক্রিয়া ও প্রযুক্তিগত মানোন্নয়ন করছে চিন। চলছে জীবাণু অস্ত্র ও রাসায়নিক অস্ত্র নিয়েও গবেষণা। এরই অঙ্গ হিসাবে সার্স জাতীয় ভাইরাস নিয়ে গবেষণা করছে চিনের সামরিক বাহিনীর গবেষণাগার। আর তার থেকেই ঘটেছে এই বিপত্তি ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here